মানবতার ফেরিওয়ালা এম এ আলী


সুহেনা আক্তার হেনা: গুনিজনরা বলেছেন “আলো ছড়ানোর দু’টি উপায় আছে।১.নিজে মোমবাতি হয়ে জ্বলো, ২. আয়নার মত আলোকে প্রতিফলিত করো”

নিজেকে মোমবাতি র মত ই বিলিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন নিজের দেশ সমাজ ও জাতীর জন্য।।যার চিন্তা চেতনার সর্বাগ্রে ঘিরে আছে মানুষের সেবা ইসলামের খেদমত এ নিজেকে বিলিয়ে দেওয়া 

বলছিলাম বৃহত্তর সিলেটের হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ থানার উমর পুর গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের কৃতি সন্তান, বর্তমানে আমেরিকা প্রবাসী লেখক সাংবাদিক কলামিস্ট ও গবেষক হিসেবে যার বেশ খ্যাতি আছে দেশে বিদেশে তিনি আর কেউ সবার পরিচিত মুখ 

এম এ আলী, যার দীর্ঘদিনের সাধনার ফসল কুরআন সুন্নাহভিত্তিক গবেষনা লব্ধ ১৪ টি ভিন্ন ধারার বই পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ধর্ম প্রিয় মুসলমান দের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছেন সম্পন্ন ফ্রীতে নিজ হাতে অটোগ্রাফ সহ মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়ে নিজে আনন্দিত হচ্ছেন।

এম আলী মনে করেন যে, জ্ঞান অর্জনের বিকল্পহীন মাধ্যম হলো বই।  আদিকাল থেকে এখন পর্যন্ত জ্ঞান-বিজ্ঞানসহ যাবতীয় কাজে বইয়ের বিকল্প নেই। তবে একজন মুসলমান হিসেবে কিছু বই প্রত্যেকের সংগ্রহে রাখা এবং পড়া উচিত। সংগ্রহে থাকলে নিজে পড়বেন, পরিবারের লোকজন পড়বে। এমনকি বাসায় আগত মেহমান-আত্মীয় স্বজনরাও পড়বে। 
সে জন্য এই বইগুলো একজন মুসলিম হিসেবে অবশ্যই সংগ্রহে রাখা এবং পড়া উচিত।

একজন ইসলাম প্রিয় ধর্মভিরু জনদরদী শিক্ষানুরাগী আকমল আলী কে পেয়ে এই মানব সমাজ ধন্য আমি মনে করি।

এম এ আলী পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন জায়গায় মানবতার ফেরিওয়ালা হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন শুধু মাত্র বই দিয় ই শেষ নয় বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম এর সাথে তিনি ওতোপ্রোতো ভাবে জড়িত আছেন দেশ তথা দেশের বাইরে ও যার সুনাম ছড়িয়ে আছে। 
সুদূর আমেরিকায় বসে ও একমুহূর্ত ভুলে যান নি মা মাটি ও প্রিয় দেশকে। তাই প্রতি মুহূর্তে ই ভাবছেন এই সমাজ এই দেশ এই জাতী কে নিয়ে,ইসলামের দায়ি হয়ে আজীবন কাজ করে যাওয়া এই ইবাদত টা উনার জন্য সাদকায়ে জারিয়া হয়ে থাকবে।

সবশেষে, এই কথা টি ই বলতে চাই অসাধারণ উদার ও মহানুভবতা র এই মানুষটি সারা জীবন মানব কল্যানে নিজেকে ব্যাস্ত রাখতে পছন্দ করেন।

এছাড়াও স্থান কাল পাত্র বেদ না করে তিনি যে কোন বিপদ গ্রস্থ অসহায় দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকেন আজীবন দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর মাঝেই তিনি আনন্দ খুঁজে পান। নিরঅহংকারী এই মহান মানুষটির সু স্বাস্থ্য ও সাফল্য কামনা করছি।