টাকার কাছে বিক্রি হয়ে মনুষ্যত্ব হারাচ্ছেন না তো?


দয়া করে আপনি টাকার কাছে বিক্রি হয়ে বিজ্ঞাপনের কোনো পাত্র হবেন না! কারণ আপনি কতটুকু জানেন ওই পণ্য সম্পর্কে, কতটকুইবা জানেন ঐ প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে? আপনি তো শুধু ভালো জানেন, আপনাকে তারা কী পরিমাণ টাকা দেবে এটার বিনিময়ে! 

আপনি কি জানেন, আপনি লক্ষ কোটি মানুষের সহজ সরল মন ও তাঁদের নিখুঁত ভালোবাসাকে পুঁজি করে আপনি তাঁদের ধোকা দিচ্ছেন, আঘাত দিচ্ছেন। আপনি হয়তো কখনওই এই আঘাত দিতে পারতেন না, যদি তাঁরা নি:স্বার্থভাবে আপনাকে ভালো না বাসতো, আপনাকে তাঁরা নিজের আইডল মনে না করতো কিংবা সেলেব্রিটি ভেবে অন্ধভক্ত না হতো! 

তাই হয়তো খুব সহজেই এই আইডিয়াকে কাজে লাগিয়ে নিজে টাকা উপার্জন করছেন ঠিকই এবং আপনার ভক্তবৃন্দরা প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছেন! কারণ তাঁরা অন্ধত্ব'র মত বিশ্বাস করে যাচ্ছে আপনাকে- অমুক সেলেব্রিটি তমুক সেলেব্রিটি যখন এ পণ্যের বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন করছেন,তখন নিশ্চয় এটা ভালো হবে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই! অথচ; আপনি হয়তো নিজে এটার ধারেকাছেও যান না! 

উপস্থিত হয়তো আপনি ঠিকই মানুষকে ধোকা দিয়ে লক্ষ লক্ষ কিংবা কোটি টাকাও বিজ্ঞাপন করে ইনকাম করে ফেলবেন, কিন্তু তার স্থায়িত্ব কতটুকু? মানুষ যখন ঘুম থেকে জেগে উঠে সঠিকটা জানবে, দেখবে-তখন কী তাঁরা সেই আগের মত আন্তরিকতা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে আপনাকে বুকে টেনে নেবে, আপনাকে নিয়ে গর্ব করবে? 

যদিও আমরা দেখতে সকলেই একদম মানুষের মত লাগে কিন্তু তারপরও সবাই প্রকৃত মানুষ না! প্রকৃত একজন মানুষের অনেক গুণাবলী থাকে অথচ; আমরা সামান্য ক'টা টাকার জন্যে বিজ্ঞাপনের নিকট বিক্রি হয়ে আপন মানুষজনকে ঠকাইতে একটুও কুণ্ঠাবোধ করি না! এরপরও আমরা ভালো মানুষ হিসেবে আত্ম অহংকারে পা মাটিতে থাকে না। 

আমরা যেকোনো কিছু করার পূর্বে যদি একটু গভীরভাবে ভেবে কাজটি করি যে, আমার এই ব্যক্তিগত স্বার্থের জন্যে কাজটি করতে গিয়ে নিজের অজানতে অন্যের দু:খ বা কষ্টের কারণ হচ্ছি না তো! তাছাড়া, টাকা পয়সার লোভ লালসাকে যদি আমরা একটু পেছনে ফেলে প্রকৃত মানুষের ন্যায় ভালো চিন্তা মাথায় রাখা যায়, তখন কমপক্ষে এত সহজে জনগণকে ঠকানো থেকে কিছুটা হলেও জনগণ তা থেকে রক্ষা পাবে। 

এছাড়া ব্যক্তিগত স্বার্থ একদমই ক্ষণস্থায়ী আর জনগণ সম্পৃক্ত স্বার্থ বা তাঁদের জন্যে ভালোকিছু করা কিন্তু  চিরস্থায়ী, এটা মাথায় রাখলেই অনেকটা ভালো কাজ করা সম্ভব। তখন ভুল পণ্য কিংবা ঐ প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে পুরোপুরি সঠিক তথ্য না জেনে বিজ্ঞাপন করা হবে না। 

সুতরাং যা করেছেন তো করেছেন, এখন থেকে যা করবেন তার পূর্বে নিজের বিবেককে বারবার প্রশ্ন করে তারপর সিদ্ধান্ত নিন, করবেন কী করবেন না।

লেখক : শেখ রুহেল
প্রভাষক : ইংরেজি বিভাগ