বন্ধ হয়ে যেতে পারে পুরো সিলেটের বিদ্যুৎ সরবরাহ


ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির ক্রমাগত অবনতি হচ্ছে। সুরমা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে শহরে অনবরত ঢুকছে পানি। পানি বৃদ্ধি পেয়ে শহরের নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এই অবস্থায় বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে। সিলেটের বেশিরভাগ এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আজ শুক্রবারের মধ্যেই পুরো সিলেট শহরের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা বিদ্যুৎ সাব স্টেশনে পানি উঠে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে ওই এলাকায় সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো)। উপশহর কেন্দ্রেও পানি উঠেছে। যে কোন সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে ওই এলাকার বিদ্যুৎ সবরাহ ব্যবস্থা।

বৃহস্পতিবার রাত থেকে পানি বৃদ্ধি পেয়ে কুমারগাঁও ১৩২/৩৩ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রও বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ওই উপকেন্দ্র থেকে সারা সিলেটে বিদ্যুৎ সবরাহ করা হয়ে থাকে।

বিদ্যুৎ বন্ধের আশঙ্কায় শুক্রবার সকালে কুমারগাঁও ছুটে যান সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বিউবোর কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেন।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বরাত দিয়ে তার ব্যক্তিগত কর্মকর্তা মুহিবুল ইসলাম ইমন জানান, বিউবোর প্রকৌশলীরা জানিয়েছেন আর মাত্র ৪ ইঞ্চি পানি বৃদ্ধি পেলে কুমারগাঁও উপকেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাবে। এতে পুরো সিলেট অন্ধকারে চলে যাবে। বিদ্যুতের পাশাপাশি বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকটও দেখা দেবে। তাই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পানি প্রবেশ বন্ধ ও পাম্প দিয়ে ভেতরের পানি সেচের ব্যবস্থার উদ্যোগ নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

ইমন জানান, বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিতে মেয়র শ্রমিক ও পাম্পসহ সবধরণের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন। যে কোনভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে তিনি বিউবোর কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীদের অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, বন্যার কারণে অনেক স্থানে বিদ্যুতের লাইন ও বাড়িঘর পানিতে তলিয়ে গেছে। কিছু কিছু জায়গায় বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে ও তার ছিড়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় সিলেট শহরের একাংশ ছাড়া পুরো জেলায় বিদ্যুৎ সবরাহ বন্ধ রয়েছে।

সূত্র : সিলেটভিউ২৪ডটকম