সিলেটে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে ‘ধর্ষণ’


ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেটের জৈন্তাপুরে প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক কিশোরীকে ধর্ষণ করেছে বখাটে যুবক সাইদুর রহমান কালা। এ ঘটনায় ভিকটিম বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছে।

অভিযুক্ত সাইদুর রহমান কালা উপজেলার নিজপাট ইউনিয়নের কালিঞ্জ গ্রামের কুটুনা মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ১৫ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮টায় স্থানীয় একটি টিলায় নিয়ে ওই কিশোরীকে ‘ধর্ষণ’ করেন কালা মিয়া।

ভিকটিমের অভিযোগের প্রেক্ষিতে জানা যায়, দরিদ্র পরিবারের ওই কিশোরীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করত সাইদুর রহমান কালা। সর্বশেষ গত ১৫ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৮টায় একইভাবে স্থানীয় একটি টিলায় নিয়ে তাকে ফের ধর্ষণ করে।

এ ঘটনা স্থানীয়রা দেখতে পেয়ে কালাকে হাতেনাতে আটক করেন।

খবর পেয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড সদস্যসহ কয়েকজন মিলে তাদের বিয়ে পড়িয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে কালাকে জনতার হাত থেকে ছাড়িয়ে নেন এবং কিশোরীকে তার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এরপরই অভিযুক্ত কালা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়দের অভিযোগ, টাকার বিনিময়ে কালাকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছেন স্থানীয় মেম্বারসহ মধ্যস্থতাকারীরা। এরপর এ ঘটনায় ভিকটিম থানায় মামলা দায়ের করেছে।

জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদ বলেন, গত শনিবার (২১ জানুয়ারি) ভিকটিমের অভিযোগ পেয়ে তদন্তপূর্বক বিষূয়টি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া অভিযুক্ত সাইদুর রহমান কালাকে গ্রেফতার করতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও জানান তিনি।