সিলেটে ‘রেকর্ড’ গড়লেন নাসরিন সুলতানা দীপা !


ডেস্ক রিপোর্ট : নাসরিন সুলতানা দীপা। গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সুখাইড় উত্তর রাজাপুর ইউনিয়নের দিগজান গ্রামে। এই উদ্যমী নারী এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ‘রেকর্ড’ গড়েছেন। সিলেট বিভাগের মধ্যে এবার প্রথম নারী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন দীপা!

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সুখাইড় উত্তর রাজাপুর ইউনিয়নে এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছিলেন নাসরিন সুলতানা দীপা। নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়ে তিনি জয়ী হয়েছেন। 

জানা গেছে, গতকাল বুধবার (৫ জানুয়ারি) উত্তর রাজাপুর ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর চেয়ে প্রায় ১২শ’ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন সুনামগঞ্জ মহিলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক দীপা। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জাকির হোসেন। 

জয় নিশ্চিত হওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় সুনামগঞ্জ ওমেনস চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক নাসরিন সুলতানা দীপা বলেন, ‘আমার মরহুম পিতা গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ও মরহুম নানা মনির উদ্দিন চৌধুরী এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন দীর্ঘদিন। তারা যেভাবে এই এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে ছিলেন, তাদের উত্তরাধিকার হিসেবে আমি কথা দিচ্ছি, আমিও আপনাদের থাকববো ইন শা আল্লাহ!’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি এই এলাকার সন্তান। তাই আমার এলাকার উন্নয়নের জন্য আজীবন কাজ করবো।’ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করায় তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

প্রসঙ্গত, নাসরিন সুলতানা দীপার স্বামী আসাদুজ্জামান সেন্টু সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক।

এদিকে, প্রথম নারী হিসেবে এবার চেয়ারম্যান হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন সালমা আক্তার চৌধুরী। সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নে তাকে মনোনয়ন দিয়েছিল আওয়ামী লীগ। কিন্তু তিনি হন চরম ব্যর্থ। তৃতীয় ধাপে হওয়া এ ইউনিয়নের নির্বাচনে জামানত হারায় নৌকা।