সিলেটে বালুভর্তি ট্রাকে পাচার হচ্ছিল ভারতীয় কসমেটিকসের চালান


ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেটের জৈন্তাপুর সীমান্তে আবারো জব্দ করা হলো ভারতীয় কসমেটিকসের চালান। বালু বোঝাই ট্রাকে পাচারকালে অর্ধকোটি টাকা মূল্যের কসমেটিকস সামগ্রী জব্দ করে পুলিশ।

এ ঘটনায় জড়িত একজনকে আটক করা হয়েছে।
শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাকড়ী এলাকায় চেকপোষ্ট বসিয়ে তল্লাশিকালে ভারতীয় কসমেটিকসের চালান জব্দ করা হয়।

ট্রাকচালক মো. রাহেলকে (২২) আটক করা হয়েছে। তিনি জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর শ্যামপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।
 
জানা গেছে, ভারতীয় কসমেটিকসের চালান পাচারের খবরে সিলেটের জৈন্তাপুর থানা পুলিশ সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের পাকড়ী এলাকায় চৌকি বসিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছিল। উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) কাজী শাহেদ এবং শহিদুল ইসলামসহ পুলিশ সদস্যরা গোপন সংবাদে এ তথ্য পান।
 
ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন সিলেট উত্তর সার্কেল (কানাইঘাট) সিনিয়র এএসপি আব্দুল করিম, জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদসহ পুলিশ সদস্যরা।
 
এসময় একটি ট্রাকের গতিরোধ করেন তারা। ট্রাকের উপরিভাগে বালু এবং এর নীচে সুকৌশলে পলিথিন দিয়ে ঢেকে রাখা ছিল ভারতীয় বিভিন্ন ধরনের কসমেট্রিক্স ও শাড়ির চালান, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ৫০ লাখ টাকা।
 
জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমেদ বলেন, বালু দিয়ে ঢেকে অভিনব কায়দায় ভারতীয় প্রসাধনী ও শাড়ি বোঝাই ট্রাক জব্দ ও চালককে আটক করা হয়েছে।
 
এর আগে গত ১ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের কাটাগং এলাকা থেকে বালু বোঝাই ট্রাকে একই কায়দায় ৮ লক্ষাধিক টাকার মূল্যের প্রসাধনী পাচারকালে জব্দ ও চালককে আটক করা হয়েছিল। ওই ঘটনার ২ সপ্তাহ পর ফের একই কৌশলে পাচারকালে ধরা পড়লো কসমেটিকসের চালান।