বৈশাখী : জয়নাল আবেদীন


বৈশাখী
জয়নাল আবেদীন 

বৈশাখী এলে তুই নাইওরী সেজে, 
মাস শেষে পালাবি সব কিছু গুজে,
থাকিস না বেশী দিন কি এমন লাজে।

তুই এলে মনে থাকে বড্ড বেশী ডর, 
তোর ঝড়ে ভেঙ্গে যায় মোর কাঁচা ঘর। 

তুই এলে নদী পায় খুঁজে তার প্রাণ, 
ভালোবেসে রাখতে পারিস বেশ তোর মান।

তুই এলে কৃষক তার ধান নেয় ঘরে তোলে,
তাই বর্ষবরণ করে নেই তোকে আপন কোলে।

তুই এলে গাছে গাছে ফুটে কত ফুল, 
কৃষক বোরোধান তুলতে হয় যে ব্যাকুল।

তোর আগমনে কৃষকে গায় মনের সুরে গান, 
তা শুনে মাতাল হয় কৃষাণির প্রাণ।

তোর আগমনে গাছে গাছে নতুন পাতার কুঁড়ি, 
তোকে নিয়ে গল্প বলে গ্রামের আদি বুড়ি।

তুই হলে গ্রীষ্ম ঋতুর প্রথম মাস, 
তোর আগমনে ফুল ছড়ায় কত যে সুবাস।

এবার গেলে বছর শেষে আসিস তুই বাড়ি, 
তুই এলে হাসবে কৃষক আর কৃষাণি নারী।