হবিগঞ্জে কালবৈশাখীতে লন্ডভন্ড শতাধিক ঘর-বাড়ি


ডেস্ক রিপোর্ট : হবিগঞ্জের মাধবপুরে কালবৈশাখী ঝড়ে প্রায় শতাধিক ঘর-বাড়ি লন্ডভন্ড হয়েছে। ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে ফসলের। বড় বড় গাছ উপড়ে পড়ে বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে গেছে। 

সোমবার (১১ এপ্রিল) ভোররাতে মাধবপুর উপজেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়নের উপর দিয়ে কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যায়। ঝড়ে চৌমুহনী ইউনিয়নের তিনগাও, হবিবপুর, বিষ্মুপুর গ্রামের শতাধিক পাকা, আধা পাকা ঘরের চাউনি উড়িয়ে নিয়ে যায়। 

তিনগাও গ্রামের সালেক মিয়া, আব্দুর রহমান, আব্দুল ওয়াহেদ, হবিবপুর গ্রামের তাজন মিয়া, হুসাইন আহামদ, রফিক মিয়া, উমর আলী, আস্কর আলী, কাছম আলীসহ প্রায় শাতাধিক লোকজনের ঘর-বাড়ি বিধস্ত হয়। এছাড়া ধর্মঘর, বহরা, আদাঐর ইউনিয়নেও বাড়িঘর বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঝড়ের কারণে অনেক এলাকার বৈদ্যুতিক লাইন ছিড়ে গিয়ে বিদ্যূৎ সংযোগ বন্ধ হয়ে যায়। ঝড়ে উঠতি ফসলের ব্যাপক ক্ষয় ক্ষতি হয়েছে। 

তিনগাও গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ সালেক মিয়া জানান, হঠাৎ করে ভোরে ঝড়ো হাওয়ার সাথে তীব্র বৃষ্টি শুরু হয়। যে কারণে আমার ঘরের টিনের চালা উড়ে গেছে। চালা উড়ে যাওয়ার কারণে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ঘরে থাকা মালামালের। তিনি বলেন, শুধু ঘর নয় আমার বাড়ির পার্শ্ববর্তী সবজিসহ ফলেরও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। 

এদিকে, সোমবার সকালে চৌমুহনী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান সোহাগ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় তার সাথে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। মাধবপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আল মামুন হাসান জানান, ঝড়ে ৫ হেক্টর সবজি, ১৫ হেক্টর বোরো ধানের আংশিক ক্ষতি হয়েছে। মাধবপুর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা শেখ মঈনুল ইসলাম মঈন জানান, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে সরকারী ভাবে সহযোগীতা করা হবে।