ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে তরুণ উদ্যোক্তা সামিল হোসেন



স্টাফ রিপোর্ট : প্রযুক্তির আশির্বাদে বর্তমান প্রজন্ম যেভাবে অনলাইন নির্ভর হচ্ছে, তাতে নিশ্চিতভাবে বলা যায় ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। অনেক তরুণই ক্যারিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিংকে বেছে নিচ্ছেন।

এমনই এক তরুণ সামিল হোসেন। একজন বাংলাদেশী সাংবাদিক ও উদ্যোক্তা। তিনি উদ্যোক্তার চেয়ে সাংবাদিক হিসেবেই বেশি পরিচিত।

তিনি সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার প্রথম মাল্টিমিডিয়া অনলাইন নিউজ পোর্টাল জি ভয়েস টোয়েন্টিফোর এর সম্পাদক ও প্রকাশক।

এছাড়াও তিনি একজন তরুণ উদ্যোক্তা। চাকরির আশায় বসে না থেকে পরিশ্রম ও মেধাকে কাজে লাগিয়ে ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমে অল্প বয়সেই সাফল্য অর্জন করেছেন সামিল হোসেন। তিনি ডিজিটাল মার্কেটিং এর পাশাপাশি একজন ব্লগার, স্বপ্রকাশিত লেখক এবং ভার্চুয়াল উদ্যোক্তাও হিসেবে সুনাম কুড়িয়েছেন।

এছাড়াও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে তিনি সামাজিক নানা কর্মকাণ্ডে যুক্ত রয়েছেন। 

তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক পেজ দ্বারা কাজ করে থাকেন, মূলত তিনি ফেসবুকের জন্য কন্টেন্ট তৈরির কাজ করে থাকেন। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের এজেন্সির হয়ে কনটেন্ট প্রজেকশন এবং ডিস্ট্রিবিউশনের মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং করে থাকেন ।

সামিল হোসেন বলেন, প্রযুক্তির হাত ধরে মানুষ যেভাবে অনলাইনের উপর নির্ভরশীল হচ্ছে, তাতে নিশ্চিতভাবে বলা যায় ডিজিটাল মার্কেটিংয়ের গুরুত্ব দিন দিন বেড়েই চলেছে। যার ফলে অনেক তরুণই ক্যরিয়ার হিসেবে ডিজিটাল মার্কেটিংকে বেছে নিচ্ছে। কারণ এ ক্যারিয়ার একজন মানুষকে একদিকে যেমন প্রযুক্তিপ্রেমী করে তুলছে, অন্যদিকে জীবনকে করে তুলছে স্বাচ্ছন্দ্যময়। ডিজিটাল মার্কেটিং যে কেউ কাজ শুরু করতে চাইলে প্রথমে তার দক্ষতা ও ধৈর্য শক্তি বাড়াতে হবে। কারণ সঠিক জ্ঞান নিয়ে একজন মানুষ তার লক্ষে পৌঁছাতে সক্ষম হয়।