সিলেটে ডাকাতকে ধরে জনতার গণপিটুনি, অস্ত্র-গাড়ি জব্দ


ডেস্ক রিপোর্ট : সিলেটে ডাকাতদের ধাওয়া করে এক ডাকাতকে ধরে গণপিটুনি দিয়েছেন জনতা।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সিলেটের জালালাবাদ থানাধীন হাটখোলা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

গণপিটুনিতে সুভাস (২৮) নামের আহত ডাকাত বর্তমানে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপতালে চিকিৎসাধীন।

সুভাস জালালাবাদ থানার শিবের বাজার এলাকার পাইকরাজ গ্রামের আলতা মিয়ার ছেলে। আলতা মিয়াও ডাকাতি করে বেড়ান বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, শনিবার ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে হাটখোলা ইউনিয়ন পরিষদের সামনে স্থানীয় লোকজন সুভাসসহ ৩/৪ জনকে একটি রেজিস্ট্রেশনবিহীন অটোরিকশাযোগে পলানোর চেষ্টা করতে দেখেন।

এ সময় তাদের ডাকাত বলে সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। এ সময় সুভাস ও তার সঙ্গীদের ধাওয়া করলে অন্যরা পালিয়ে যেতে পারলেও জনতা সুভাসকে হাতে আটক করে। পরবর্তীতে স্থানীয় উত্তেজিত জনতা সুভাসকে বেধড়ক মারপিট করেন।

খবর পেয়ে শিবেরবাজার ফাঁড়ির একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে জনতার হাত থেকে সুভাসকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপতালে প্রেরণ করে। এ সময় পুলিশ ডাকাত দলের ব্যবহৃত একটি অটোরিকশা এবং একটি রামদা ও তালা ভাঙার যন্ত্র জব্দ করে।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন জালালাবাদ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবু খালেদ। তিনি জানান, সুভাসের বিরুদ্ধে সিলেট মহানগর ও সিলেট জেলার বিভিন্ন থানায় চুরি, ডাকাতি, ছিনতাইসহ একাধিক মামলা রয়েছে।